মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

কী সেবা কীভাবে পাবেন

 

সমবায় অধিদপ্তর কর্তৃক প্রদত্ত সেবা ও গুরুত্বপূর্ণ তথ্য

 

০১।        সমবায় একটি নিবন্ধনকৃত এবং গণতান্ত্রিক শৃঙ্খলায় পরিচালিত অর্থনৈতিক সংগঠন যার সামাজিক সম্পৃক্ততা রয়েছে।

 

০২।       নিবন্ধন বা অনুমোদন ব্যতিতহ কোন সংগঠন কিংবা সমিতি বা সংঘের নামে ‘‘সমবায় ’’ বা ‘‘কো-অপা শব্দ ব্যবহার করা যায় না এবং কেউ যদি এই আইনটি লংঘন করেন তবে দায়ী ব্যক্তি অনধিক এক বৎসর কারাদন্ডে বা অনধিক ৫,০০০/-(পাঁচ হাজার ) টাকা অর্থ দন্ডে বা উভয় দনে্ডপ দন্ডিত হবেন।

 

০৩। একটি প্রাথমিক সমবায় সমিতি নিবন্ধনের ক্ষেত্রে নুন্যতম ২০(কুড়ি) জন ব্যক্তি সদস্যের প্রয়োজন।

 

০৪।       কেন্দ্রীয় সমবায় সমিতি অর্থাৎ এমন একটি সমবায় সমিতি,  যার সদস্য হবে একইরূপ অন্ততঃ ১০(দশ)টি প্রাথমিক সমবায় সমিতি।

 

০৫।       জাতীয় সমবায় সমিতি অর্থাৎ এমনি একটি সমবায় সমিতি, যার সদস্য হবেন একই উদ্দেশ্য সম্বলিত   ১০(দশ)টি কেন্দ্রীয় সমবায় সমিতি।

 

০৬।       সমবায় সমিতি নিবন্ধনের উদ্দেশ্যে নির্ধারিত ফরমে, নির্ধারিত পদ্ধতিতে, নির্ধারিত ফি, সমিতির প্রস্তাবিত উপ-আইনের বিনটি কপি এবং নির্ধারিত অন্যান্য কাগজপত্র সহ সংশ্লিষ্ট নিবন্ধকের নিকট আবেদন পত্র দাখিল করতে হবে। সংশ্লিষ্ট নিবন্ধক ৬০ দিনের মধ্যে নিবন্ধন কার্য সমাপ্ত করবেন অথবা ৩০ দিনের মধ্যে সংশ্লিষ্টদের নিকট প্রয়োজনীয় তথ্য দাখিলের পরামর্শ দিতে পারেন।

 

০৭।       নিবন্ধন সনদঃ পেশকৃত নিবন্ধনের কোন আবেদন মঞ্জুর হলে নিবন্ধক আবেদনকারীর বরাবরে নির্ধারিত ফরমে একটি নিবন্ধন সনদ ইস্যু করবেন এবং এ সনদ উক্ত সমিতির নিবন্ধনের ব্যাপারে চুড়ান্ত প্রামাণ্য দলিল  হিসেবে গণ্য হবে।

 

০৮।       প্রত্যেক সমবায় সমিতি একটি সংবিধিবদ্ধ সংস্থা, যার স্থায়ী ধারাবাহিকতা আছে।

 

০৯।       সমবায় আইন, বিধি ও উপ-বিধি পালন শর্তে সমবায় সমিতির চুড়ান্ত কর্তৃত্ব তার সাধারণ সভার উপর বর্তাবে।

 

১০।        প্রত্যেক সমবায় সমিতির ব্যবস্থাপনার দায়িত্ব আইন, বিধি, উপবেধি মোতাবেক গঠিত একটি ব্যবস্থাপনা কমিটির উপর থাকবে এবং সাধারণ সভায় সম্পাদন যোগ্য কার্য ব্যতিত সকল কার্য উক্ত কমিসিম্পাদন করবে।

 

১১।        সমবায় আইন অনুযায়ী প্রত্যেক সমবায় সমিতির কমপক্ষে ৭(সাত)টি রেজিষ্টার হাল নাগাদ সংরক্ষণ করতে  হবে।

 

১২।        সাধারণ সভার অনুমতি ব্যতিত কোন সমবায় সমিতির স্থাবর সম্পত্তি এবং যন্ত্রপাতি বা যানবাহনের ন্যায় সম্পত্তি যা সমিতির মূলধনের অংশ তা বিক্রয়, বিনিময় বা ৫(পাঁচ) বৎসরেরা অতিরিক্ত সময়ের জন্য ইজারা    প্রদান করা যাবে না। এর ব্যত্যয় শাস্তিযোগ্য অপরাধ।

 

১৩।       সমিতির হিসাব ও কার্যক্রম নিবন্ধক কর্তৃক মনোনীত কর্মকর্তা বা প্রতিষ্ঠান দ্বারা বাৎসরেক অডিট কার্য  সম্পাদন করাতে হবে।

 

 

১৪।        সমিতির কার্যক্রমে সংক্ষদ্ধ হলে ব্যবস্থাপনা কমিটির এক তৃতীয়াংশ সদস্য অথবা সাধারণ সদস্যের ১০% নিবন্ধকের নিকট তদন্তের আবেদন করতে পারেন।

 

১৫।       সমিতির কার্যক্রম অথবা অবসায়ন অথবা নির্বাচন পরিচালনা সংক্রান্ত বিষয়ে কোন সংক্ষুব্ধ ব্যক্তি সংশ্লিষ্ট  নিবন্ধক এর নিকট বিধি মোতাবেক সালিশ দাবী করতে পারেন। সালিশের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে ৩০(ত্রিশ) দিনের মধ্যে আপীল করতে পারেন।

 

১৬।       সমবায় আইন ভঙ্গকারী কোন ব্যক্তির ৫,০০০/-(পাঁচ হাজার) টাকা জরিমানা বা ৬(ছয়) মাস পর্যন্ত কারাদন্ড হতে পারে।

 

১৭।        সমবায় সংক্রান্ত যে কোন তথ্য বা পরামর্শের প্রয়োজন হলে যে কোন সমবায় কার্যালয়ে কোন ব্যক্তি পরামর্শ করতে পারেন।


Share with :

Facebook Twitter